রেসিপিঃ সবজি ডাটা মিক্স ভাজি (আদা যোগে)

অনলাইন ডেস্ক | 2017/02/05 | 03:09

ঘরে আপনি একা! বাইরে বের হতেও ইচ্ছা হচ্ছে না। এদিকে দুপুর গড়িয়ে যাচ্ছে, খেতে হবে। ফ্রিজ খুলে দেখলেন তেমন গরম করে খাবার মত কিছুই নেই! এমতাবস্থা কিন্তু জীবনের জন্য নুতন কিছু নয়। জীবনে নুতন নুতন পরিস্থিতি মোকাবেলা করেই এগিয়ে যেতে হয়। রান্নাঘরে প্রবেশ করে দেখলেন, কয়েকটা কয়দিনের পুরানো বেগুন, আলু, কাঁঠাল বিচি, ডাটা ইত্যাদি পড়ে আ্জি (এমন বেছে যাওয়া তরকারী প্রায় ঘরেই থাকে, এক কেজি আলু কিনলে কি আর এক কেজিই রান্না হয়, হা হা হা)! চিন্তার কিছু নেই, কাজে লেগে পড়ুন। এক চুলাতে ভাত বসিয়ে অন্য চুলায় এই তরকারী রান্নার ব্যবস্থা করুন। ভয়ের কিছু নেই! আপনার ভালবাসাই আপনার রান্না সুন্দর ও মজাদার করে তুলবে। আদা কুঁচি এবং পেঁয়াজ কুঁচি দিয়েই চমৎকার একটা ভাজি আজ আপনাদের দেখিয়ে দেব, অসাধারণ স্বাদ। আমি নিজেই এই রান্না করেছি এবং ফলাফল দেখে অত্যন্ত আনন্দ পেয়েছি। আমার রান্না টেষ্টার বুলেট এই রান্না খেয়ে তারিফ করেছে, সাথে আপনাদের ব্যাটারী ভাবীও প্রশংসা করেছে।

চলুন দেখে ফেলি! আগেই বলে নেই, লোহার কড়াইতে এই রান্নাটা হয়েছিল এবং মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে ছবি গুলো তুলেছিলাম। গুরুত্বহীন রান্না মনে করে এড়িয়ে যাচ্ছিলাম, কিন্তু স্বাদ দেখে আপনাদের জন্যও তুলে দিলাম। আশা করি আপনাদের ভাল লাগবে। একদিন রান্না করে দেখতে পারেন।

ইচ্ছানুযায়ী নানা পদের সবজি (শক্ত শব্জির সাথে কয়েকটা নরম সবজি মিশিয়ে) এভাবে চিকন করে কেটে ভাল করে ধুয়ে নিন। এখানে বেগুন, ডাটা (পুঁইশাকের ডাটা), কাঁঠালের বিচি, আলু।

উপকরণঃ (পরিমান আপনি নিজেই ভেবে নিন)
– কয়েক পদের সবজি চিকন কাট
– পেঁয়াজ কুঁচি
– আদা কুঁচি
– রসুন কুঁচি
– হলুদ গুড়া
– কয়েকটা কাঁচা মরিচ (ঝাল বুঝে)
– চিনি (এক চিমটি)
– লবন (পরিমান মত)
– তেল
– পানি
– ধনিয়া পাতার কুঁচি

* লাল মরিচ গুড়া দেয়া হয় নাই, কাঁচা মরিচের ঝালেই রান্না হয়েছে

প্রনালীঃ

ছবি ১, সামান্য লবন যোগে তেল গরম করে আদা ও রসুন কুঁচি ভাল করে ভেঁজে সোনালী করে নিন।


ছবি ২, কয়েকটা কাঁচা মরিচ এবং পেঁয়াজ কুঁচি দিন। ভাঁজুন।


ছবি ৩, এবার হলুদ গুড়া দিন এবং ভাল করে মিশিয়ে ভাঁজুন মিনিট পাঁচ।


ছবি ৪, তেল উঠে গেলে সবজি গুলো দিয়ে দিন।


ছবি ৫, ভাল করে মিশিয়ে নিন, আগুন মাধ্যম আঁচে চলবে।


ছবি ৬, এবার এক কাপ পানি দিন। গা গা পানি।


ছবি ৭, হাতের কাচে যে ঢাকনা পাবেন তা দিয়েই ঢেকে দিন, মিনিট ১০, মাধ্যম আঁচে।


ছবি ৮, এই রকম হয়ে যাবে।


ছবি ৯, ভাল করে মিশিয়ে নিন। পানি শুকিয়ে সব সবজি নরম হল কিনা দেখে নিন। সবজি নরম না হলে আগুন কমিয়ে দিতে হবে। (আর পানি লাগবে বলে মনে হয় না!)


ছবি ১০, ধনিয়া পাতার কুঁচি দিন।


ছবি ১১, ভাল করে মিশিয়ে নিন এবং ফাইন্যাল লবন দেখুন, লাগলে দিন না লাগলে ওকে বলুন। দেখার সৌন্দর্য্যের জন্য কয়েকটা আস্ত মরিচ দিতে পারেন, ইচ্ছা হলে খেতেও পারেন! (ঝাল কখনোই ভাল নয়)


ছবি ১২, পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।


ছবি ১৩, এর স্বাদ একবার নিন। আপনার হাতের কাছের এমন শক্ত সবজি এবং সাথে একটা বেগুন দিয়ে রান্না করেই দেখুন।

READ : 694 times

এইদিনে