‘নুরুল আমার বড় ছেলে আমি তাকে ছাড়া এ ঘরে কেমন করে উঠি’

নিউজ ডেস্ক | 2018/04/29 | 16:11

পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ ও ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের চাঁদার টাকায় অবশ‌েষে বাড়ি প‌েলেন সাবজান ব‌িবি‌ শুধু বাড়ি নয় বাড়িটিতে স্বাচ্ছন্দে বসবাসের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা সহ বিদ্যুৎ ব্যবস্থার সকল সুযোগ-সুবিধা পেলেন তিনি ।

জানা গেছে ময়মনসিংহ‌ ঈশ্বরগঞ্জ অসহায় মহিলা সাবজান বিবি ১৯৯৬ সাল থেকে ২০১৮ সাল অবদি দীর্ঘ ২২ বছর কোর্টে মামলা চলার পর ২০১৮ সালের ৩১শে জানুয়ারি মামলা নিষ্পত্তি হয় এবং কোর্ট তার জমি তাকে বুঝিয়া দেওয়ার নির্দেশ দিলে সে বাড়ি করে থাকতে শুরু করেন । হঠাৎ কিছুদিন আগে কিছু দুর্বৃত্তরা তার ঘর বাড়ি ভেঙে সেখানে ফসল ফলানো শুরু করে। অসহায় স‌ে মহ‌িলা ভাংচুর হওয়ার পর ফাকা মাঠে অবস্থান কর‌েন ।

এনিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশের পর ময়মনসিংহ পুলিশ পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম পিপিএম বার বিপেএম নির্দেশে ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ তার বাড়ি করার ব্যবস্থা করেন। তারপর পুলিশ সুপার ময়মনসিংহ সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম ঘটনাস্থলে গিয়ে অসহায় মহিলাকে নিশ্চয়তা প্রদান করেন যে অপরাধী রা কেউ মাফ পাবে না, সবাইকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সাবজান ব‌িব‌ির অনুরোধে তার বাড়িতে এসে উপস্থিত হলে সাবজানবিবি তার নতুন বাড়িতে উঠত‌ে রাজি হয়। । এ ব্যাপাারে সাবজান ব‌িবি‌র সাথ‌ে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান নুরুল আমার বড় ছেলে আমি তাকে ছাড়া এ ঘর এ কেমন করে উঠি । এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন ।

উপস্থিত পুলিশ সদস্য কে জানান সকাল থেকেে তিনি না খেয়ে পুলিশ সুপারের পথ চেয়ে বসে ছিলেন। সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার এসে বাড়িটির উদ্বোধন করলে সেই বাড়িতে সৈয়দ নুরুল ইসলাম কে সঙ্গে নিয়ে প্রবেশ করেন এবং একসঙ্গে রাতের খাবার খান।

অন্যদিকে সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান অপরাধীরা যতই শক্তিশালী এবং যে দলেরই হোক না কেন আমার কাছে ছাড় নয় । তিনি আরো জানান শুধু সাবজন বিবির স্বাচ্ছন্দ্যে বসবাসের জন্য একটি সোলার প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে এবং সকল খরচ আমরা ময়মনসিংহ পুলিশ চাদা তুলে মানবিক কাজটি সম্পন্ন করেছি এই অসহায় সাবজান বিবি উঠলেন সেই নতুন বাড়িতে।

গতকাল বিকেলে বাড়িটি উদ্বোধন করেন সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম, । তার দেওয়া কথামত সবজান বিবির সাথে একসাথে খাবার খেলেন পুলিশ সুপার । ঘর হস্তান্তরের সময় ময়মনসিংহের পুলিশের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিগন উপস্থিত ছিলেন।

READ : 4637 times

এইদিনে